" crossorigin="anonymous"> আধুনিকতা নিয়ে কিছু কথা good great 2023 - Sukher Disha...,

আধুনিকতা নিয়ে কিছু কথা good great 2023

আধুনিকতা । পাঁচ অক্ষর বিশিষ্ট একটা শব্দ আজ গোটা সমাজ জীবনে হই হই রব ফেলে দিয়েছে । কালের শাশ্বত নিয়মে পুরাতন ধ্যান ধারণার অবসান ঘটিয়ে নতুন ধারণাকে স্বাগত জানাতে চাই মানুষ। । তাই প্রয়োজনের তাগিদেই মানুষ তার জীবন ধারাকেই বারে বারে পরিবর্তন করেছে । যুগে যুগে মানুষ বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে উন্নত থেকে উন্নততর জীবনের দিকে এগিয়ে গিয়েছে । যদি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় গুলিকে সমাজের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের বিচরণ ক্ষেত্র হিসাবে ধরা হয় তাহলে আধুনিক সমাজ গড়ার কাজে এদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ।

আধুনিকতা নিয়ে কিছু কথা good great 2023

আধুনিকতা জিনিসটা আসলে গ্রাম থেকে শহরেই বেশি প্রাধান্য পায় । অথচ গ্রামের থেকে শহরের ছেলেমেয়েদের পোশাক আশাক এবং চালচলন অনেকটাই খারাপ , তাহলে এটাকে আধুনিকতা কখনোই বলা যাবে না , অথচ আমরা আধুনিকতা বলতে শহরটাকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকি , আজকে দেখবেন শহরের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় অফিস আদালতে যেসব কাণ্ডগুলো হয় সেগুলো কিন্তু আসলে গ্রামেই হয় না । সেটাকে শহরে রূপান্তরিত করলে আমার মনে হয় আরো বর্তমানে যে আধুনিকতা আছে তার থেকেও অনেক আধুনিক হওয়া যাবে

by google image


কিন্তু সময় পাল্টেছে আজকের স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় গুলির দিকে তাকালে দেখা যাবে তথাকথিত আধুনিক চেরা ফাটা ও খাটো পোশাকে সজ্জিত তরুণ তরুণীরা আধুনিকতার মহা বিপ্লবের শামিল । হাটে ঘাটে বাজারে আধুনিকতার বন্যা বইয়ে দেওয়ার জন্য এরা যেন বদ্ধপরিকর । শুধু পোশাক পরিচ্ছেদে নয় কথাবার্তা ও চাল চলনে কেমন যেন একটা উগ্র উগ্র গন্ধ চলে এসেছে । এটাকে যদি আধুনিকতার চূড়ান্ত রূপ ধরে নেয়া হয় তবে ওইসব কলেজ পড়ুয়া তরুণ তরুণীদের নব্য আধুনিক হিসাবে মেনে নেওয়া হয়, তাহলে আধুনিকতার সংজ্ঞা দিয়ে আমাদের নতুন করে ভাবার সময় এসেছে ।


আজকের তরুণ তরুণীদের চাওয়া অনেক । আবার তাদের কাছেও সমাজ সভ্যতা রাজ্য ও দেশের চাওয়াও অনেক । বলা হয় তারাই নাকি আধুনিক যুগের কান্ডারী । অথচ এদের চালচলন পোশাক পরিচ্ছেদ বা আধুনিকতার রকম সকম দেখে মনে হয় সত্যিই এরাই কি আগামী দিনের কান্ডারী? এদের ওপর কি কোন ভরসা করা যায় ?


একটা সময় ছিল যখন কলেজ পড়ুয়া তরুণ তরুণীদের আড্ডার টেবিল ছিল সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিবর্তনের মন্ত্রণালয় । এখন কান পাতলেই শোনা যায়, নিতান্তই সাধারণ গতানুগতিক আলোচনা । কিন্তু বস্তাপচা অশ্লীল জোকস আর ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ এবং টুইটারের আপডেট স্ট্যাটাস । আপাত দৃষ্টিতে এদের আলাপ-আলোচনা পোশাক পরিচ্ছেদ অনেকের দৃষ্টি বিভ্রম ঘটায় । নাট্য জগতের ওরা আমরা বা রাজ্য রাজনীতি নিয়ে বিশেষজ্ঞ সুলভ আলোচনা এবং মাঝে মাঝে অন্যান্য বিষয় নিয়ে অগভীর মন্তব্য তাদের মানসিক সংকীর্ণ তাকেই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় । নিছক আতলেমি আর অত্যাধুনিক পোশাকের গতি প্রকৃতি এবং গড্ডালিকা প্রবাহে মিশে যাওয়ার হিড়িক দেখে মনে হয় এরা কারা এরাই কি আমাদের আগামী দিনের কান্ডারী ?

by google image


অবশ্য বর্তমানে মেরুদন্ডহীন বিদেশি টিভি চ্যানেলগুলো আর কিছু সস্তা দরের তৃতীয় শ্রেণীর সিনেমা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এদের এই অধঃপতনের জন্য দায়ী বলে আমি মনে করি । পৃথিবীর বুকে ঘটে যাওয়া ঘটনা সম্পর্কে যুবসমাজকে সচেতন করা এদের সামাজিক দায়িত্ব । কিন্তু সেই দায়িত্ব এরা সঠিকভাবে পালন করে না । সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে বিভ্রান্ত করছে আজকের তরুণ তরুণীদের । কিন্তু এরাই ছিল একসময়ের সমাজ গঠনের কান্ডারী বা বা হাতিয়ার । আধুনিকতার সঠিক ভাবনা থেকে বিচ্যুত করছে সেই আধুনিকতার দোহাই দিয়ে । আধুনিকতার মোড়কে যেসব তত্ত্বতালাশ পরিবেশিত হচ্ছে তা তার সংবাদ মূল্য নাকি বেশি । মানুষ বেশি বেশি চাইছে এর ওপর ভিত্তি করে যদি সংবাদ মূল্য নির্ধারিত হয় সে ব্যাখ্যা মেনে নিতে দ্বিধা থাকবেই ।


তাই আজকের আধুনিকতা বলা যায়, অত্যাধুনিকতা বারেবারে প্রশ্নের সম্মুখীন হচ্ছে । সংস্কার মুক্ত মন যাকেবলমাত্র বৈজ্ঞানিক সচেতনতা তথা যুক্তির কষ্টিপাথরে যাচাই হওয়ার কথা তা আজ অবৈজ্ঞানিক হঠকারিতায় বিপথে চালিত হচ্ছে। তাই পোশাকে নয়, অথবা দু-চারটে ইংরেজি বুলিতে নয়, আধুনিকতা প্রয়োজন আমাদের ভাবনায় । আধুনিকতার প্রয়োজন আমাদের চিন্তায় ও মনের মধ্যে । শেষ কথা হল এই ধরনের আধুনিক মনন সৃষ্টিতে যে ধরনের আত্মত্যাগ করা উচিত আমরা তা করি না । করতে চায়না । করার জন্য চেষ্টাও করি না । বা এর জন্য আমরা প্রস্তুত নই ।

by google image


প্রতিষ্ঠা বাদ আজ ঘরে ঘরে । এখন জীবনের লক্ষ্য একটা গদি আটা চেয়ার আর অঢেল অর্থ এই নিয়ে । যা দিয়ে খুব সহজেই কেনা যায় আধুনিক জীবনযাপনের সব সুযোগ সুবিধা ও সব সরঞ্জাম । কি সাহিত্য কি শিল্প কি সংস্কৃতি ক্রমশ যেভাবে উন্নত হয়েছে তার পিছনে রয়েছে শ্রম আর ত্যাগের অপূর্ব সমন্বয় । আর এই শ্রম ও ত্যাগের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে যে আধুনিক জীবন তার সমস্ত উপকরণ এখন স্রেফ অর্থ দিয়ে কিনতে চাই

শিক্ষা আনে চেতনা । চেতনা আনে বিপ্লব । বিপ্লব আনে মুক্তি । এই কথাটি আজকের আধুনিক আধুনিকাদের কাছের হয়ে দাঁড়িয়েছে শিক্ষা আনে অর্থ । অর্থ আনে মর্যাদা । মর্যাদা আনে আধুনিকতা । উক্তিগুলো একই আছে কিন্তু এর মানেটা সম্পূর্ণ আলাদা হয়ে গেছে আজকের সমাজে । এখন শিক্ষাই আনে অর্থ । যে শিক্ষা আনার কথা ছিল চেতনা । কিন্তু তা না এনে এখন আনছে অর্থ । আর অর্থ আনে মর্যাদা ।

আজ এই কথাটিই বেশি গুরুত্বপূর্ণ । কার পয়সা হল কিভাবে হল সেটা দেখার কোন দরকার নেই । পয়সা যখন বেশি হয়েছে তখন সে মর্যাদা বেশি পাবেই । লোক কি ধরনের সেটা কেউ দেখেনা , দেখার প্রয়োজনও মনে করে না । একটা কথায় মনে করে যার পয়সা আছে সেই পাবে সম্মান ও মর্যাদা । অবশ্যই একে ভাবের ঘরে চুরি ছাড়া আর কি বলবো? একটা উদার আধুনিক মনষ্কতা গড়ে তোলার পিছনে যে প্রয়াস ও কঠোর অনুশীলনের প্রয়োজন তার ছিটে ফোঁটা কি দেখা যাচ্ছে এখন ।

by google image


চেষ্টা শুধু প্রতিষ্ঠা বাদের ভিড়ে মিশে যাওয়া । আর এই প্রতিষ্ঠাবাদের ভিড়ে যারা মিশে যায় তারাই হয়ে ওঠে আধুনিকতার শ্রেষ্ঠ বক্তা । এইসব ব্যক্তিগুলোর মুখ দিয়ে বের হয় এখন এক কথা আবার পরিস্থিতি বদলে গেলে তখন অন্যরকম কথা ।


অবশ্য এর ব্যতিক্রম যে নেই তা নয় । আছে, কিন্তু এরা সংখ্যায় অতি নগণ্য । এখনো অনেক তরুণ তরুণী আছে যারা একটা আধুনিক মন নিয়ে এ সমাজ এ সভ্যতার পরিবর্তনের আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে। তারা সংখ্যায় নগণ্য হলেও চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে আধুনিক তরুণ তরুণীদের দিকে । তারা সফল হবে কিভাবে তা তার সময়ই বলবে । কারণ যে দিকের দল ভারি থাকে সেদিকের ক্ষমতাও বেশি হয় । আর তাদেরকে প্রাধান্য দেওয়াটাই সমাজের কর্তব্য । তাই সংখ্যায় নগণ্য হয়ে তাদের ক্ষমতা সমাজে প্রতিষ্ঠিত করার কাজটা একদম বৃথা। কিন্তু সাধারণ মধ্যবিত্ত সমাজ এদেরও স্বীকৃতি দিতে নারাজ ।


তাই পোশাক নয় বুলি নয় অথবা সমাজের গতানুগতিক প্রতিষ্ঠান নয়, সঠিক জীবনচর্চা যুক্তিপূর্ণ সিদ্ধান্ত ও ইতিবাচক মানসিকতায় চিনিয়ে দেয় সেই সব তরুণ তরুণীদের যারা প্রকৃত অর্থে আধুনিক। তাদের মেনে নিয়েই এ সমাজ, এসব সভ্যতা অর্জন করুক সম্মুখ এগিয়ে যাবার শক্তি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *