" crossorigin="anonymous"> আমিষ ভোজীদের থেকে নিরামিষ ভোজী রায় বেশি সুস্থ থাকে Health is important and wonderful for happiness 1 - Sukher Disha...,

আমিষ ভোজীদের থেকে নিরামিষ ভোজী রায় বেশি সুস্থ থাকে Health is important and wonderful for happiness 1

যারা মাছ মাংস ডিম খাই অর্থাত যারা আমিষভোজী তারা যারা শাকসবজি খায় অর্থাত নিরামিষ ভোজি তারাই বেশি সুস্থ থাকেন । বিজ্ঞান জগতের বক্তব্য যারা আমিষ ভোজি তারা যদি দুই এক সপ্তাহের জন্য নিরামিষ ভোজি হয় তাহলে তাদের স্বাস্থ্যের যে উপকার বা উন্নতি তা পৃথিবীর অন্য কোন খাবারে বা ওষুধে হবে না হবে ।

আমিষ ভোজীদের থেকে নিরামিষ ভোজী রায় বেশি সুস্থ থাকে GOOD 17 November 2023


1) ডি- টক্সিফাইড – একজন শাকসবজি খাওয়া ব্যক্তি যাদের খাবারের তালিকায় প্রত্যেকদিন ফাইবার মিশ্রিত খাবার যেমন বাঁধাকপি, ফুলকপি ,মিষ্টি কুমড়া,কচিলাউ, টমেটো,মসুরি ডাল,পাকা কলা,মটর সুটি প্রভৃতি থাকে তাদের শরীরের ক্ষতিকারক কোষগুলি মৃত্যুবরণ করে অর্থাত নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে । তাদের শরীরের সমস্ত বিষাক্ত পদার্থ এবং উপাদানগুলিকে বাইরে বের করে দেয় এই সবজিগুলো ।

আর অন্য দিকে মাংস, মাছ ও ডিম এই খাবারগুলি শরীরের বিষাক্ত পদার্থ ও উপাদানগুলিকে বের করতে পারে না কারণ এই খাবারগুলিতে ফাইবারের কম থাকায় । কষা পায়খানা, পেট পরিষ্কার রাখতে, পরিপাকতন্ত্রের ক্যান্সার রোধে, রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করতে, ও ডায়াবেটিস রোধে ফাইবার যুক্ত খাবারের গুরুত্ব অপরিসীম ।

by google image

2) হাড় বা bone শক্ত করে – বেশিরভাগ মাংস খাওয়া লোকেদের নিয়মিত খাদ্য তালিকায় শাকসবজি থাকে না বললেই চলে । কিন্তু মাংসে আছে প্রচুর প্রোটিন এবং শাক সবজিতে আছে প্রচুর ক্যালসিয়াম যা হাড় বা bone কে শক্ত করে । এবং দেহকে ছোট থেকে বড় হতে সাহায্য করে । শরীরে প্রোটিনের পরিমাণ যদি অধিক মাত্রায় বেড়ে যায় এবং সেই তুলনায় ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কমে যায় তবে ক্যালসিয়াম তার নির্দিষ্ট কাজ করতে অক্ষম হয়ে পড়ে ।

এর ফলে শরীরের অত্যাধিক প্রোটিন শুষে নেয় ক্যালসিয়ামকে ফলে হাড়ের ক্ষতি হয় । তাই সম্পূর্ণরূপে নিরামিষ ভোজী না হতে পারলেও অন্ততপক্ষে একদিন পরপর খাদ্য তালিকায় গোস্ত ও মাছ মাংসের পাশাপাশি শাকসবজি রাখা অতীব জরুরি । এতে শরীরের যেমন উপকার হবে এবং টাকা পয়সাও কম খরচ করে । সেই তুলনায় মাছ মাংসের থেকে শাকসবজি বেশি পরিমানে খাওয়া ভালো ।

by google image

আমিষ ভোজীদের থেকে নিরামিষ ভোজী রায় বেশি সুস্থ থাকে 17 November 2023


3) শাক সবজি ঘাটতি পূরণ করে কার্বোহাইড্রেট এর – একজন আমিষ ভোজি অর্থাত বেশি পরিমানে মাংস খাওয়া মানুষের খাদ্যের সারিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট এর ঘাটতি থাকে তাহলে কেটসিস এ আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা বেশি । কেটসিস মানে দেহের যে অতিরিক্ত চর্বি জমা হয়, যার ফলে শরীরে শক্তি কমে যায়, শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে এবং ক্লান্তির সৃষ্টি হয়।

তবে যদি খাদ্য তালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণে শাকসবজি থেকে থাকে তাহলে এই কার্বোহাইড্রেটের ঘাটতি পূরণ শাকসবজিতে রক্ষা করতে পারে । তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় শাকসবজি রাখতে হবে । শাকসবজি দেহের অতিরিক্ত চর্বি গলিয়ে দেহের দে অত্যাধিক ওজন সেটা কমাতে সাহায্য করে ।

by google image

4) হজম প্রক্রিয়া সহজ করে – সব মানুষের হজম শক্তি একই রকমের হয় না । বিশেষজ্ঞদের মতে হজম শক্তি সুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ । কারণ এটি বাধাগ্রস্থ হলে বা কোন রকমের সমস্যা দেখা দিলে শরীর নিস্তেজ হয়ে পড়ে । হজম প্রক্রিয়ার তিনটি প্রক্রিয়া পরপর ঘটতে থাকে প্রথম হচ্ছে খাবার খাওয়া, দ্বিতীয়টি হচ্ছে সেটা সম্পূর্ণরূপে হজম হওয়া তৃতীয়টি হচ্ছে হজমের পর সেটা দেহে শোষণ হওয়া এই তিনটি ধাপেই দেহের জন্য গুরুত্বপূর্ণ । শাকসবজিতে যে সব উপাদান রয়েছে যা শরীরের হজম ক্ষমতাকে সহজ করে দেয় । কিন্তু মাছ মাংসে যে প্রচুর পরিমাণে চর্বি ও তেল থাকে তা আমাদের হজম প্রক্রিয়াকে বেশ শক্ত করে তোলে । তাই শাকসবজি

4) ত্বক কে সুন্দর রাখে শাকসবজি – আমরা সবাই চাই সুন্দর থাকতে । সুন্দর থাকতে গেলে রূপচর্চার পাশাপাশি যেটা জরুরী সেটা হল ভিতর থেকে আমাদের ত্বককে সুন্দর হয় বা লাবণ্য বাড়ে । আর যখন ভিতর থেকে ত্বকের লাবণ্য বাড়বে তখনই আপনাকে সুন্দর দেখাবে । এজন্য আপনাকে নিয়মিত খাবার আপনার খাবার তালিকাই রাখতে হবে সেগুলো হল করোলা, মিষ্টি কুমড়া, টমেটো, বিট ,ফুলকপি, শসা ইত্যাদি।অন্যদিকে নাশপাতি, আপেল, পেয়ারা বেদানা, তরমুজ, এসব এনে দেয় ত্বকের বাড়তি উজ্জ্বলতা

by google image

আমিষ ভোজীদের থেকে নিরামিষ ভোজী রায় বেশি সুস্থ থাকে 17 November 2023


5) ওজন কমাতে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করে শাক সবজি – মাছ মাংস না খেলে সহজে ওজন বাড়তে পারবে না । নিজের শরীরের অত্যাধিক ওজন কমানোর ও শরীরকে নিয়ন্ত্রণে রাখার সহজ উপায় হলো মাছ মাংস না খাওয়া । কোলেস্টরেল কমাতে ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে গম ও জব এর রুটি, বাদাম, মটরশুটি, সিম ইত্যাদি।

by google image


6) দাঁতের সুস্থতা – সৌন্দর্যের অনেকটাই নির্ভর করে সুন্দর ঝকঝকে হাসির উপর । উজ্জ্বল দাঁত যেমন চেহারায় সুন্দর ঝলক নিয়ে আসে তেমনি দাঁত ও নারীর স্বাস্থ্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ । বাড়ির ইনফেকশন গাছ হলুদ হয়ে যাওয়ার সমস্যা তৈরি হয় ভুল খাদ্যাভাসের কারণে ।পান,গুটখা,বিড়ি,সিগারেট ইত্যাদি দাঁতের ক্ষতিকরে। কাঁচা গাজর চিবিয়ে খেলে এর মধ্যে থাকা উপাদান দাঁত চোখ হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে ।

পালং শাকে ভিটামিন এ থাকায় তাঁতের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে । ক্যাপসিকাম দাঁতের মাড়ি ইনফেকশন সারাতে সাহায্য করে । ব্রকলির দাঁতের এনামেল ক্ষয় রুখতে সাহায্য করে । ফুলকপি তে ভিটামিন সি থাকায় দাঁত ও মাড়ি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে ।

by google image

শুধুমাত্র সবুজ শাকসবজিতেই কিছু উপাদান পাওয়া যায় যা দেহে গ্লুকোজ ও রঞ্জক পদার্থের জন্য উপকারী । এবং এই উপাদান শরীরের ডায়াবেটিস, ক্যান্সার, কিডনি রোগ, হৃদ রোগ, হাড়ের ক্ষয় রোধ রক্ষা করতে সাহায্য করে । এই উপাদান টি হল ফিটো নিউ ট্রিয়েন্টস। যারা নিরামিষভোজী তাদের শরীরে কোন রোগ সহজে বাসা বাঁধে না অর্থাত তাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেশি । আর যারা আমিষ ভোজী তাদের শরীরে ছোটখাটো অসুখ লেগেই থাকে যেমন গ্যাস, পায়খানা অপরিষ্কার , হজমের সমস্যা ইত্যাদি । এবং আমিষ ভোজীদের শরীরের ওজন অত্যাধিক হারে বৃদ্ধি পায় ।

Read More>>>>>>>>

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *