" crossorigin="anonymous"> GREAT ইসলামের অনুশাসন ও রীতিনীতি 2023 - Sukher Disha...,

GREAT ইসলামের অনুশাসন ও রীতিনীতি 2023

হজরত মুহাম্মদ (সাঃ) ৬১০ খ্রিস্টাব্দে নবুয়ত লাভ করেন । তখন হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর বয়স ছিল 40 বছর । ওই সময় থেকে নিয়মিত নবীদের কাছে আল্লাহর তরফ থেকে ওহি বা প্রত্যাদেশ আসতে থাকে । নবুওয়াত পাওয়ার পর তার ওপর এক আল্লাহর কথা প্রচারের গুরু দায়িত্ব এসে পড়ে ।

GREAT ইসলামের অনুশাসন ও রীতিনীতি 2023


কারণ সে সময় আরবের বেশিরভাগ মানুষ ছিল মূর্তি পূজায় বিশ্বাসী । আল্লাহর আদেশ পেয়ে নবী (সাঃ) মক্কায় মূর্তি পূজা ঈদের কুরআনের উপদেশ শোনাতে শুরু করেন । বহু দেব-দেবীর পূজার পরিবর্তে এক আল্লাহর উপাসনা করার কথা তিনি বলতেন । এভাবে তিনি কলেমার দাওয়াত দিতে থাকেন । সর্বপ্রথম কলেমা পড়ে ইসলাম গ্রহণ করেন তিনার বিবি খাদিজা । নবুওয়াত পাওয়ার পর প্রথম তিন বছর মাত্র ৪০ জন ইসলাম গ্রহণ করেন । তারপর মহানবীর জীবিত কালে সমগ্র আরবের বেশিরভাগ মানুষ ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন ।

এভাবে আজ থেকে বহু বছর আগে আরবে ইসলাম ধর্মের প্রবর্তন হয়।ইসলাম কথার অর্থ হল শান্তি, তার অন্য অর্থ হলো আত্মসমর্পণ করা । এক ও অদ্বিতীয় আল্লাহর কাছে শর্তহীন আত্মসমর্পণ ইসলামের মূল কথা । এর দ্বারাই প্রকৃত শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয় । যারা ইসলাম ধর্ম মেনে চলে তাদের মুসলমান বলা হয় । পরিপূর্ণ মুসলমান হতে গেলে পাঁচটি কর্তব্য পালন করতে হয় । অর্থাত ইসলাম ধর্ম প্রধান পাঁচটি অবশ্য পালনীয় অনুশাসন বা রীতি-নীতির ওপর দাঁড়িয়ে আছে । এই পাঁচটি কর্তব্য বা অনুশাসন হল 1) কালেমা, ইমান 2) নামাজ 3) রোজা 4) যাকাত 5) হজ ।

GREAT ইসলামের অনুশাসন ও রীতিনীতি 2023

by google image

1) ইমান বা কলেমা – ইসলামী অনুশাসনের প্রথম শর্ত হলো কালেমা অর্থাত ঈমান । ঈমান কথার অর্থ হল বিশ্বাস । ঈমানের প্রথম শর্ত হলো তৌহিদ বা আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বাস করা । আল্লাহ এক ও অদ্বিতীয়, তার কোন শরীর বা সমকক্ষ নেই, তিনি সর্বশক্তিমান, তিনি একমাত্র ইবাদতের যোগ্য, এবং সমস্ত প্রশংসার অধিকারী । এ সমস্ত বিশ্বাস করাই হলো ঈমান । প্রথম কলেমা তৈয়্যেবা করলে ঈমান মজবুত হয় ।

কালেমা বলতে বোঝায় আল্লার একাত্ম এবং মুহাম্মদ (সাঃ) এর নবুয়তের স্বীকৃতিকে বিশ্বাস করা । কালেমা টি হলো লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সাঃ) । এর অর্থ হল আল্লাহ ছাড়া কোন উপাস্য নেই আল্লাহ এক ও অদ্বিতীয় এবং হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) হলেন তার প্রেরিত রাসুল বা পায়গম্বর (দূত)


এভাবে আল্লাহ এবং তার রসুলের ওপর সম্পূর্ণ বিশ্বাস করা ঈমান এর প্রথম এবং প্রধান শর্ত । ঈমানের আরো কতকগুলি শর্ত হল ফেরেশতা, ধর্মগ্রন্থ কোরআন সহ সকল আসমানী কিতাব, সমস্ত রসূল, আখেরাত, পুনরুত্থান বাহ মরণ সম্পর্কে বিশ্বাস স্থাপন করা ।

by google image

GREAT ইসলামের অনুশাসন ও রীতিনীতি 2023

2) সালাত বা নামাজ – নামাজ বা সালাত হলো ইসলামের দ্বিতীয় স্তম্ভ বা খুঁটি । নামাজ ফরাসি শব্দ আর সালাত হলো আরবি শব্দ । এর অর্থ হল দোয়া বা প্রার্থনা । ইসলামের ধর্মীয় অনু শাসনের মধ্যে প্রতিদিন পাঁচবার নামাজ আদায় করার প্রত্যেক মুসলমানের অবশ্য পালনীয় কর্তব্য । এটি প্রধান অনুশাসন । একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে আল্লাহর প্রতি আনুগত্য দেখানোই হলো নামাজ । নামাজ হলো আল্লাহ ও মানুষের মধ্যে এক ধরনের যোগাযোগ স্থাপনের সেতুবন্ধন । আমাদের প্রতিদিনের জীবন সংগ্রামে যিনি সাহায্য করছেন সেই সৃষ্টির প্রতি ভক্তি ও ভালোবাসা জানানো , কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা এবং সাহায্য প্রার্থনা করার নামই হলো নামাজ ।


মহানবী (সাঃ) জীবনে কখনো নামাজকে বাদ দেননি । প্রতিদিন যে, পাঁচবার নামাজ পড়তে হয় তা হল ফজর নামাজ বা সূর্য ওঠার আগে ভোরের নামাজ, জোহর নামাজ বা দুপুরের পড়ার নামাজ, আসরের নামাজ বা বিকালের নামাজ, সূর্য ডোবার সঙ্গে সঙ্গে সন্ধ্যাবেলায় পড়া হয় মাগরিব নামাজ । এশার নামাজ বা রাত্রির প্রথম অংশের নামাজ । পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ একাকী বা অনেক মিলে একসঙ্গে পাঠ করা যায় ।


নামাজের শর্ত- নামাজ পড়ার জন্য শরীর পবিত্র হওয়া দরকার । যেখানে নামাজ পড়া হবে সে জায়গা এবং জামা কাপড় পবিত্র হতে হবে । তা না হলে নামাজ হবে না । কোন নামাজ পড়ছি তা মনে মনে ঠিক করে নেওয়া অর্থাত নিয়ত করা নামাজের একটি শর্ত । নামাজের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ শর্ত হল কাবা শরীফের দিকে মুখ করে নামাজ পড়া । নামাজের পূর্বে অজু করা এবং সঠিক সময়ে নামাজ আদায় করা নামাজের অন্যতম শর্ত । একসঙ্গে সমবেতভাবে নামাজ আদায় করার জন্য পূর্বে আজান দেওয়া হয় ।


নামাজের গুরুত্ব- নামাজ ইসলাম ধর্মের একটি ধর্মীয় অনুশাসন হলেও মানুষের জীবনের গুরুত্ব কম নয় । সকল আনুষ্ঠানিক ক্রিয়ার মধ্যে নামাজ শ্রেষ্ঠ । প্রতিদিনের নামাজ মানুষকে সহজ ও সত্যবাদী করে তোলে । একসঙ্গে নামাজ পাঠ মানুষের সামাজিক বন্ধন মজবুত করে । একসঙ্গে মিলেমিশে থাকতে শেখাই । নামাজের মধ্য দিয়ে মানুষের মধ্যে নিয়ম শৃঙ্খলা গড়ে ওঠে । নামাজের কিছু শারীরিক উপকারিতাও আছে । নামাজ পাঠের সময় যেভাবে ওঠাবসা করা হয় তাতে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে রক্ত সঞ্চালন হয় । যা বিভিন্ন রোগের প্রতিরোধ করে । শরীর সুস্থ থাকে । সর্বোপরি নামাজ মানুষ এবং আল্লাহর মধ্যে যোগসূত্র তৈরি করে । মহানবীর (সাঃ) কোথায় নামাজ বিশ্বাসীদের জন্য স্বর্গে আরোহণ ।

by google image

GREAT ইসলামের অনুশাসন ও রীতিনীতি 2023


3)সওম বা রোজা – ইসলামে নামাজের পরই রোজার স্থান । এটি ইসলামের তৃতীয় স্তম্ভ । রোজা ফরাসি শব্দ আর সওম আরবি শব্দ । যার অর্থ হল বিরত থাকা । সোবহে সাদেকের সময় থেকে শুরু করে সূর্যাস্ত পর্যন্ত উপবাস করাকে রোজা বলে । তবে দিনের বেলা শুধু খাদ্য পানীয় না খেয়ে থাকায় রোজার প্রধান লক্ষ্য নয়, মিথ্যা কথা বলা, হিংসা করা, পরনিন্দা করা প্রভৃতি সমস্ত ধরনের মন্দ কাজ থেকে দূরে থাকাই হলো রোজা । এক কথায় সব ধরনের নোংরা কাজ থেকে মানুষকে সংযত রাখাই হলো রোজার উদ্দেশ্য ।


রোজার শর্ত- প্রতিটি মুসলমান নর নারীর জন্য বছরে একমাস রোজা রাখা অবশ্য পালনীয় কর্তব্য । তবে অসুস্থ পীড়িত ও মুসাফিরদের জন্য রোজা রাখা বাধ্যতামূলক নয় । আবার অল্পবয়স্ক শিশুদের প্রতি রোজা রাখা ফরজ নয় । আরবি রমজান মাসে রোজা অনুষ্ঠিত হয় ।

রোজার গুরুত্ব – রোজা মানুষকে আত্মসংযম শেখায় । রোজাদার মানুষ কু চিন্তা ও কু কাজ থেকে দূরে থাকে । রোজা করা মানুষের মধ্যে শৃঙ্খলা বোধ তৈরি হয় । প্রকৃতপক্ষে এটি এক ধরনের নীতি শিক্ষা বা আমাদের ভালো মানুষ হতে শেখায় । তাছাড়া রোজা করলে মানুষের কিছু শারীরিক উপকার হয় । যেমন বিভিন্ন রোগ জীবাণু নষ্ট করে আবার রোজা মুসলমানদের সামাজিক ও ধর্মীয় বন্ধন কে মজবুত করে ।

by google image


4) যাকাত – ইসলাম মানুষের জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা । ইসলামী অনুশাসনের চতুর্থ ধাপ হলো যাকাত । কুরআনে সূরা বাকারায় বলা হয়েছে নামাজ কায়েম করো এবং যাকাত দাও । যাকাতের অর্থ বিশুদ্ধকরণ । আর যাকাতের মূল কথা গরীবকে সাহায্য দান । ধনী ব্যক্তিদের সঞ্চিত অর্থের শতকরা আশায় ভাগ দরিদ্র ও অসহায় মানুষকে দেওয়া বাধ্যতামূল । যা যাকাত নামে পরিচিত । জমিতে উতপন্ন ফসল, গবাদি পশু, সোনা ও রুপা প্রভৃতির ওপর যাকাত দিতে হয় শর্তসাপেক্ষে ও নির্দিষ্ট নিয়মে ।


যাকাতের শর্ত – যাকাত বাধ্যতামূলক হওয়ার ক্ষেত্রে কতগুলি শর্ত আছে । যাকাত দাতাকে মুসলমান, বুদ্ধিমান, সাবালক পরীর মুক্ত হতে হবে এবং অবশ্যই অর্থশালী হতে হবে । আর যাকাত গ্রহণ করতে পারে অভাবী, বেকার, দরিদ্র ও অসহায় মুসলিম মানুষেরা ।


যাকাতের গুরুত্ব- ধর্মীয় দিক ছাড়াও যাকাত সামাজিক ও অর্থনৈতিক দিক থেকেও গুরুত্বপূর্ণ । দরিদ্র জনসাধারণের উন্নতি করায় যাকাতের লক্ষ্য । যাকাতের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে প্রীতি ও সহযোগিতা বৃদ্ধি পায় । মানবজাতি শোষণ থেকে রক্ষা পাই । ধনী ব্যক্তিরা ঠিক ঠাক যাকাত দিলে গরীব মানুষেরা উপকৃত হয় । সমাজে ধনী ও দরিদ্রদের মধ্যে পার্থক্য দূর হয় , সাম্য প্রতিষ্ঠিত হয় আর সমাজে ঐক্য মজবুত হয় ।

by google image


5) হজ – হজ হল ইসলামী অনুশাসনের শেষ স্তম্ভ। হজ শব্দের অর্থ হলো কিছু জিয়ারত করার উদ্দেশ্যে গমন করা । মক্কায় গিয়ে কাবা শরীফ তাওয়াফ বা প্রদক্ষিণ করা । নামাজ পালন করা ও অন্যান্য নিয়ম কানুন পালন করা । আরবি জিলহজ মাসে ১৩ তারিখ হজ অনুষ্ঠিত হয় । হজ ধনী ব্যক্তিদের ওপর ফরজ । গরিব মানুষের জন্য হজ বাধ্যতামূলক নয় । নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ইসলাম প্রচারের পূর্বেও এর প্রচলন ছিল । ট হট যাত্রা মুসলমানদের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে একতা সৃষ্টি করে । হজে মুসলিমদের বিশ্ব ভ্রাতৃত্ববোধ গড়ে ওঠে ।


হজের শর্ত – প্রতিবছর আরবি জিলহজ মাসে ৮ থেকে ১৪ তারিখের মধ্যে হজ অনুষ্ঠিত হয় । হজের কতকগুলি আনুষ্ঠানিক ক্রিয়াকর্ম আছে । যেগুলি এহরাম বাধা, কাবা ঘর তাওয়াফ করা, হাজারে হআসওয়াদ পাথরে চুম্বন করা , সাফা মারওয়া পাহাড়ে দৌড়ানো, আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করা, এবং শয়তানকে উদ্দেশ্য করে তিন জায়গায় পাথর মারা ইত্যাদি । হজ পালনের শর্ত হলো মুসলমান হওয়া,সুস্থ হওয়া, উপযুক্ত বয়স হওয়া, আর্থিকভাবে সচ্ছল হওয়া ইত্যাদ ।


হজের গুরুত্ব – ইসলাম ধর্মে হজ একটি গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ । হজ মুসলমানদের ঈমানকে শক্তিশালী করে । হজের ধর্মীয় গুরুত্ব ছাড়াও কিছু সামাজিক গুরুত্ব আছে । আজকে কেন্দ্র করে মক্কায় ও মদিনায় বহু লোকের আগমন ঘটে । বিশ্বের মুসলমানদের মিলন কেন্দ্রে পরিণত হয় মক্কায় মদিনা । ধনী-দরিদ্র , উঁচু নিচু, সাদা কালো সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষ একই উদ্দেশ্যে হজের সময় মিলিত হয় । ফলে তাদের মধ্যে বিশ্ব ভ্রাতৃত্ববোধ তৈরি হয়। । ঐক্য গড়ে ওঠে পৃথিবীর আর কোন ধর্মে এমন নিদর্শন নেই ।

কেউ যদি এই পাঁচটি স্তম্ভ সঠিকভাবে মেনে চলে । তবে সে একজন সৎকর্মশীল মানুষের পরিণত হবে । এবং শেষে সে অফুরন্ত সুখের জায়গা জান্নাতে প্রবেশ করবে ।

Read More>>>>>>

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *