" crossorigin="anonymous"> শিক্ষিত হয়েও গ্যাস ভর্তুকি নিতে গিয়ে খোয়ালেন ব্যাংক একাউন্টের টাকা Money is a good and wonderful resource 2024 - Sukher Disha...,

শিক্ষিত হয়েও গ্যাস ভর্তুকি নিতে গিয়ে খোয়ালেন ব্যাংক একাউন্টের টাকা Money is a good and wonderful resource 2024

প্রতিদিনই বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়ার খবর শোনা যাচ্ছে। তাই খুব সাবধানে না থাকলে মুসকিলে পড়তে হবে আপনাকে ।

শিক্ষিত হয়েও গ্যাস ভর্তুকি নিতে গিয়ে খোয়ালেন ব্যাংক একাউন্টের টাকা Money is a good and wonderful resource 2024

আর সাবধানে থেকেও খোয়াতে হচ্ছে টাকা । একটু সুযোগ পেলেই টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য তৈরী হয়ে বিভিন্ন প্রতারণা দল। আজ এই রকমই বাঙ্ক আকাউনট থেকে টাকা হারানোর একটি ঘটনা বলতে যাচ্ছি আপনাদের কে । চলুন দেখি আসল ঘটনাটি কি ———

এই অবাক করা ঘটনাটি ঘটেছে আমাদের প্রতিবেশী জেলা নদীয়ার শান্তিপুর এলাকার 9 নম্বর ওয়ার্ডের মোজাহার আলি লেনের বাসিন্দা ।এই মোজাহার আলি লেনের এক পাড়ায় বসবাস করেন কাওসার আলী ও তার পরিবার । পরিবার বলতে তার বৃদ্ধ বাবা – মা ,তার এক কন্যা সন্তান, ও স্ত্রী জেসমিন এই ছিল কাওসার আলীর পরিবার ।‌ পরিবারে অসুস্থ বৃদ্ধ বাবা – মার ঔষধ ও তার একমাত্র কন্যা সন্তানের পড়ানোর খরচ বাবদ অল্প অল্প করে টাকা জমিয়ে রেখে ছিলেন কাওসার আলী আর তার স্ত্রী জেসমিনা বিবি ।

by google image

শিক্ষিত হয়েও গ্যাস ভর্তুকি নিতে গিয়ে খোয়ালেন ব্যাংক একাউন্টের টাকা Money is a good and wonderful resource 2024

কাওসার আলীর ইনকামের উপর নির্ভরশীল তার সমস্ত পরিবার । শান্তি পুরের প্রধান জীবিকা তাঁতশিল্প । এক সময় এই তাঁত শিল্প অনেক মুনাফা এনে দিয়েছে। কিন্তু এখন সবাই তাত শিল্পতে যোগ দেওয়ার ফলে লাভের পরিমাণ অনেক কমে গিয়েছে। এতে সংসার চালানো অনেক মুস্কিল হয়ে পড়েছে। তার পরে আবার করোনায় এই তাঁতশিল্পের অনেক ক্ষয় – ক্ষতি হয়েছে । আব্বা মার খরচ ও মেয়ের পড়াশোনার জন্য এই টাকা গুলো অল্প অল্প করে ব্যাঙ্কে জমিয়ে রেখেছিল। কষ্ট করে জমিয়ে রাখা টাকা গুলো হারিয়ে এখন প্রায় দিশেহারা অবস্থা। কি করবে কিছুই বুঝতে পারছে না । অসুস্থ আব্বা মার ঔষধ কিনবে কি করে আর মেয়েকেই বা পড়াবে কি ভাবে । এই সব ভাবতে ভাবতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলার অবস্থা ।

by google image

এবার আমরা‌ দেখবো কি ভাবে তিনি ব্যাঙ্ক থেকে টাকা খোয়ালেন

সেদিন দুপুর বেলায় কাওসার আলীর ফোনে একটা অজানা নম্বর থেকে ফোন আসে । কাওসার আলিকে প্রথমে নমস্কার জানিয়ে বলে আপনি যে কোম্পানির গ্যাস ব্যাবহার করেন আমরা সেই কোম্পানির গ্যাস অফিস থেকে বলছি করোনার কারণে লকডাউনের সময় থেকে আপনার গ্যাসের ভূর্তুকী বাবদ 55 হাজার টাকা আপনার গ্যাস একাউন্টে জমা আছে সেই টাকা আপনাকে দেওয়ার জন্য ফোন করা হয়েছে । আপনি দয়া করে ফোন ধরে রাখুন ও আমাদের কে এ বিষয়ে সাহায্য করুন । কাওসার আলি ও 55হাজারের কথা শুনে তারা যা বলতে থাকলো সেই মতো কাজ করতে লাগলো।শিক্ষিত হয়েও গ্যাস ভর্তুকি নিতে গিয়ে খোয়ালেন ব্যাংক একাউন্টের টাকা Money is a good and wonderful resource 2024

ওপার থেকে বললো এবার দেখুন আপনার ফোনে একটি 6 সংখ্যার ও টি পি গেল সেটা বলুন কাওসার আলি সাদা মনের মানুষ তিনি ওটিপি ওদেরকে বলে দিলেন । এবার তারা বললো আপনার মোবাইলের টাকা পাঠানোর অ্যাপস phonepe অথবা paytm খুলুন ও দেখুন ওখানে সুব্রত বিশ্বাস ও প্রতিবারুই নামে দুটি নাম গিয়েছে এবার phonepe বা paytm এর ওখানে লিখুন 7799 এবার তা আমাদের কে সেন্ট করুন ।

কাওসার আলি তাদের কথায় 7799 লিখে পাঠিয়ে দিলেন। সাথে সাথে টাকা কাটার একটা message কাওসার আলীর ফোনে আসলো । এবার কাওসার আলি এই message দেখে একটু ভিমরি খেলেন । তারপরে ওদের কে বললেন আরে আমার account থেকে তো টাকা কেটে নিল আর সেই টাকা আপনাদের account এ চলে গেল, ওপার থেকে একটু ধমকের সুরে বলে উঠল বেশি বোঝার চেষ্টা করবে না ।

by google image

আমরা যেচে আপনাকে আপনার পড়ে থাকা টাকা ফেরত দিচ্ছি আর এই নম্বর গুলি ওটিপি মাত্র। এই ভাবে ওটিপি পাঠানোর নাম করে মোট 7বারে প্রথমে কাওসার আলীর account থেকে পরে ওনার স্ত্রীর account থেকে প্রায় 57000 টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পর তারা বলে আপনার ভর্তুকীর সমস্ত জমানো টাকা আপনার একাউন্টে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে । কাওসার আলী ব্যাংকে গিয়ে অ্যাকাউন্ট চেক করেই তার হুস ফিরলো ।

তার আগেই সব শেষ হয়ে গিয়েছে । গ্যাসের ভর্তুকি দূরের কথা তার একাউন্টে যে ৫৭ হাজার টাকা ছিল সে টাকাও তার account আর নেই । আর ভর্তুকির একটি টাকাও তো ঢোকেনি । এইভাবে তার অ্যাকাউন্ট খালি হয়ে যাওয়াতে কাউসার আলী একদম ভেঙে পড়েছেন । কি আর করবে শেষমেষ তিনি শান্তিপুর থানায় সমস্ত ঘটনা খুলে বলেন । যাতে পুলিশ এই টাকা উদ্ধার করে দিতে পারে ।

by google image

পরিশেষে

আপনাদের সবাইকে বলছি এই ঘটনার মতো যেন আপনাদের জীবনে না ঘটে । কোনভাবেই ফোন করে কোন অপরিচিত ব্যক্তি মোবাইলের otp চাইলে কখনোই আপনারা দিবেন না । মোবাইলে আশা কোন মেসেজ না পড়ে সঙ্গে সঙ্গে টা ওপেন করবেন না । আপনারা না বুঝতে পারলে শিক্ষিত কাউকে দেখান । তবুও কোন মেসেজ কিংবা otp কাউকে দিবেন না । সব থেকে ভালো হবে, এখন তো চোর ডাকাতের কোন ভয় নেই আপনার গোছানো টাকা আপনার বাড়িতেই রেখে দিন

Read More>>>>>

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *